খেলাধুলা

অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে নিজেদের প্রমাণ করতে চায় বাংলাদেশ

  প্রতিনিধি ৯ নভেম্বর ২০২৩ , ৬:০১:০০ প্রিন্ট সংস্করণ

অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে নিজেদের প্রমাণ করতে চায় বাংলাদেশ

বিশ্বকাপ বাছাইয়ে আবারো অস্ট্রেলিয়ার গ্রুপে বাংলাদেশ। কাতার বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনার বিপক্ষে হেরে অস্ট্রেলিয়ানদের বিদায় ঘটে। দেড় বছর পর সেই অসেট্রলিয়ার সঙ্গেই খেলবেন জামালরা। ১৬ নভেম্বর মেলবোর্নে ম্যাচটি খেলতে বাংলাদেশ দল আগামীকাল রাতে রওনা হবে। এর আগে আজ কিংস অ্যারেনায় সংবাদ সম্মেলন করেছে বাফুফে।

র‌্যাংকিং কিংবা শক্তিমত্তা সব সূচকেই বাংলাদেশের চেয়ে ঢের এগিয়ে অস্ট্রেলিয়া। এরপরও নিজেদের ওপর আত্মবিশ্বাস রাখছেন অধিনায়ক জামাল ভূইয়া, ‘অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ম্যাচ নিয়ে আমরা আত্মবিশ্বাসী, আমরা ভালো খেলব। অবশ্যই অস্ট্রেলিয়া অনেক শক্তিশালী দল।’

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ভালো খেলা যে শুধুই কম ব্যবধানে পরাজয় সেটা আগের দুই লড়াইয়ে স্পষ্ট। পার্থে ০-৫ আর ঢাকায় ০-৪ গোলে হেরেছিল বাংলাদেশ। ২০১৫ বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দলে ছিলেন জামাল ভূইয়া। আট বছর পর আবার অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছেন বিশ্বকাপ বাছাই খেলতে। আট বছরের ব্যবধানে তিনি দুই দলের পার্থক্য দেখলেন এভাবে, ‘এবার সম্পূর্ণ ভিন্ন একটা দল নিয়ে আমরা অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছি। আগেরবারের সঙ্গে এবারের দলের অনেক পার্থক্য।’

২০১৫ সালের দলে বাংলাদেশের ওপর তেমন প্রত্যাশা ছিল না। সাম্প্রতিক ফলাফল ও পারফরম্যান্সে আশা জাগিয়েছে বাংলাদেশ দল। এই পারফরম্যান্সের নেপথ্যের কারিগর স্পেনিশ কোচ হ্যাভিয়ের ক্যাবরেরা। কোচ খেলোয়াড়দের অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে চাপমুক্ত রাখারই পরিকল্পনা করেছেন।

তিনি বএলন, ‘অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে তাদের বিপক্ষে ভালো খেলাটা বাংলাদেশের ফুটবলের জন্য খুবই ইতিবাচক একটা ব্যাপার হবে।’ ফলাফলের চেয়ে মানসিকতা গুরুত্ব পাচ্ছে এই ম্যাচে ক্যাবরেরার কাছে, ‘অস্ট্রেলিয়া আমাদের ওপর আধিপত্য বিস্তার করেই খেলবে। আমাদের লড়াকু মনোভাবের ঘাটতি থাকা যাবে না। নিজেদের পারফরম্যান্স ধরে রাখতে হবে।’

কোচের সঙ্গে সুর মিলিয়ে অধিনায়ক বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়ার মতো দলের সঙ্গে নিজেদের পারফরম্যান্সটাই জরুরি। সেটিই ধরে রাখতে হবে। সম্প্রতি আমরা মালদ্বীপকে হারিয়েছি, আফগানিস্তানের সঙ্গেও ভালো করেছি। মেলবোর্নে গিয়ে আমরা যেন বেশি উচ্ছ্বসিত না হই। নিজেদের লড়াকু প্রমাণ করতে পারি। আমি চাই এটিই।’

জাতীয় দলে কিংসের ফুটবলাররা আজ ক্যাম্পে যোগ দেবেন। আগামীকাল পূর্ণাঙ্গ অনুশীলন হবে। বিকেলে অনুশীলন করে রাতে অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশ্যে রওনা হবে বাংলাদেশ।