ফিচার

কুমিরকে বিয়ে করলেন মেয়র!

  প্রতিনিধি ২ জুলাই ২০২৩ , ৪:২৪:২৫ প্রিন্ট সংস্করণ

ভোরের দর্পণ ডেস্ক:

দর্শকরা হাততালি দিচ্ছেন, নাচছেন। এমন উৎসবমুখর পরিবেশে একটি কুমিরকে বিয়ে করেছেন এক ব্যক্তি। তিনি মেক্সিকোর দক্ষিণাঞ্চলের চোন্টাল আদিবাসী-অধ্যুষিত সান পেড্রো হুয়ামেলুলা শহরের মেয়র। তার নাম ভিক্টর হুগো সোসা। তিনি অ্যালিসিয়া অ্যাড্রিয়ানা নামের মেয়ে কুমিরকে বিয়ে করেছেন।

নগরবাসীর জন্য সৌভাগ্য নিয়ে আসার উদ্দেশ্যে কুমিরটিকে আঞ্চলিক রীতি-নীতি মেনে বিয়ে করেন মেয়র। খবর এনডিটিভির

বিয়ের আনুষ্ঠানিকতার সময় মেয়র সোসা বলেন, তিনি কনের দায়িত্ব গ্রহণ করছেন। কারণ, তারা পরস্পরকে ভালোবাসেন। ভালোবাসাটা গুরুত্বপূর্ণ। ভালোবাসা ছাড়া বিয়ে করা যায় না। তিনি রাজকুমারীর সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হলেন।

বিয়ে উপলক্ষে কুমিরটিকে ‘নববধূর’ সাজে সাজানো হয়। বিয়ের আগে কুমিরটিকে ঘরে ঘরে নিয়ে যাওয়া হয়। উদ্দেশ্য-নগরবাসী যাতে তাকে দুই বাহুতে নিয়ে নাচতে পারে।

বিয়ের আগে দুর্ঘটনা এড়াতে কুমিরটির মুখ বেঁধে রাখা হয়। পরে তাকে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতার জন্য শহর মিলনায়তনে যাওয়া হয়।

আচার-আনুষ্ঠানিকতার অংশ হিসেবে স্থানীয় এক জেলে তার জাল ছুড়ে মারেন। তিনি সুর করে প্রার্থনা করেন। প্রার্থনায় বলা হয়, এ বিয়ের ফলে যেন একটা ভালো সংখ্যক মাছ ধরা পড়ে, যার মধ্য দিয়ে শহরে সমৃদ্ধি, ভারসাম্য ও শান্তি আসে।

প্রায় ২৩০ বছর আগে একটি বিয়ের মাধ্যমে এলাকাটিতে দুটি আদিবাসী গোষ্ঠীর মধ্যে শান্তি এসেছিল। একটি আদিবাসী গোষ্ঠীর নাম চোন্টাল, অপরটি হুয়াভ। সেই ঘটনাকে স্মরণ করে এত বছর ধরে একজন পুরুষ মানুষের সঙ্গে একটি নারী কুমিরের বিয়ে হয়ে আসছে।