ক্রিকেট

প্রধানমন্ত্রীকে প্রশংসায় ভাসালেন তামিম ইকবাল

  প্রতিনিধি ১০ মার্চ ২০২১ , ৮:১১:৩১ প্রিন্ট সংস্করণ

ভোরের দর্পণ ডেস্ক:

ক্রাইস্টচার্চ ছেড়ে কুইন্সটাউনে পৌঁছেছে বাংলাদেশ দল। সেখানে ৫ দিনের অনুশীলন ক্যাম্পের পর একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। ক্রাইস্টচার্চ ছাড়ার আগে করোনা ভ্যাকসিন প্রসঙ্গে বাংলাদেশ সরকার প্রধানকে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন টাইগার অধিনায়ক তামিম ইকবাল।

বিদেশে ক্যাপ্টেন তামিমের প্রথম অ্যাসাইনমেন্ট। করোনার পর এই প্রথম সমুদ্র পাড়ি দিয়েছেন টাইগাররাও। দেশ ছাড়ার আগে ক্রিকেটাররা নিয়েছেন করোনা ভ্যাকসিন। উন্নত অনেক দেশের আগেই প্রতিষেধক পাওয়ার পুরো কৃতিত্বটা সরকার প্রধানকে দিয়েছেন তামিম।

তামিম ইকবাল বলেন, ‘কোনো না কোনো সময় আপনাকে ভ্যাকসিন নিতেই হবে। আমি মনে করি আমাদের দেশ দারুণ কৃতিত্ব দেখিয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সব ব্যাপারেই সূদুরপ্রসারী। তিনি আগেভাগেই চমৎকার উদ্যোগ নিয়েছেন। জাতি হিসেবে আমরা ভাগ্যবান। কেবল ক্রিকেটাররাই না, সাধারণ মানুষও ভ্যাকসিন সেবা পাচ্ছেন। আর সবচেয়ে বড় ব্যাপার এটা একদম বিনামূল্যে।’

ক্রাইস্টচার্চে এতোদিন ছোট ছোট গ্রুপে অনুশীলন করেছে মুশফিক-মাহমুদউল্লাদরা। তবে কুইন্সটাউনে আর কোনো শর্ত নেই। কাঙ্খিত দলীয় অনুশীলন শুরু করবে লাল-সবুজরা। ৫ দিনের ক্যাম্প শেষে একটা প্রস্তুতি ম্যাচও আছে সূচিতে।

টাইগার অধিনায়ক বলেন, ‘কুইন্সটাউনে আমাদের কিছু প্র্যাকটিস সেশন আছে। একটা প্র্যাকটিস ম্যাচও আছে। আমরা আইসোলেশনের সময়টায় ছোট গ্রুপ করে অনুশীলন করছিলাম। তবে আগামীকাল থেকে আমরা দলীয় অনুশীলন শুরু করবো। দলের সবাই এজন্য মুখিয়ে আছে।’

শেষ যেবার ক্রাইস্টচার্চ ছেড়েছিল বাংলাদেশ, সঙ্গী হয়েছিল সন্ত্রাসী হামলার আতঙ্ক। তবে সে স্মৃতি ভুলে সুযোগ পেলে তাসমান সাগরপাড়ে বার বার আসতে চান তামিম। আর দেখা হলে নিউজিল্যান্ড প্রধানমন্ত্রীকে দিতে চান ধন্যবাদ।

অধিনায়ক তামিম বলেন, ‘ওই সময়টা আমাদের সবার জন্যই কঠিন ছিল। বিশেষত যারা স্বজন হারিয়েছেন। তবে দুঃস্মৃতি পেছনে ফেলে এগিয়ে যেতে হবে। নিউজিল্যান্ড চমৎকার একটা দেশ। এখানকার মানুষ অনেক আন্তরিক। ভবিষ্যতেও যখনই আসার সুযোগ পাবো, আমরা আসতে কোনো দ্বিধা করবো না।’

১৬ মার্চ কুইন্স টাউন থেকে প্রথম ওয়ানডের ভেন্যু ডানেডিনে যাবে টিম বাংলাদেশ। ২০ মার্চ শুরু হবে দু’দলের মাঠের লড়াই।

আরও খবর

Sponsered content