ঢাকা

বিয়ের চাপে প্রেমিকাকে খুন, গ্রেফতার প্রেমিক

  প্রতিনিধি ৩০ জানুয়ারি ২০২৪ , ৫:১৮:৩৯ প্রিন্ট সংস্করণ

বিয়ের চাপে প্রেমিকাকে খুন, গ্রেফতার প্রেমিক

ঢাকার সাভারে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে বাসা ভাড়া নেওয়ার তিন দিনের মাথায় এক পোশাক শ্রমিককে খুনের দায়ে শিমুল আলী ওরফে শিমুল রেজা (২৬) নামের পোশাক শ্রমিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে আশুলিয়া থানায় এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন সাভার সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার শাহিদুল ইসলাম। এর আগে আজ ভোররাতে আশুলিয়ার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেপ্তার শিমুল আলী ওরফে শিমুল রেজা রাজশাহী জেলার দুর্গাপুর থানার জয়কৃষ্ণপুর গ্রামের আবদুল জলিলের ছেলে। তিনি স্থানীয় একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করতেন। নিহত ববিতা গাইবান্ধা জেলার ফুলছড়ি থানার পশ্চিম খাটিয়ামারি গ্রামের মৃত আজিজুল হকের মেয়ে।

সংবাদ সম্মেলনে সাভার সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার শাহিদুল ইসলাম বলেন, নিহত ববিতা গাজীপুরে থেকে একটি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন। প্রায় ছয় মাস আগে তার পূর্বের স্বামীর সাথে বিচ্ছেদ হলে আশুলিয়ার ইউনিক এলাকায় এসে ভাড়া থাকতে শুরু করেন। পরে শিমুল আলী ওরফে শিমুল রেজার সাথে নিহত ববিতার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ববিতা শিমুলকে বিয়ের জন্য চাপ দিতে থাকে।

তবে শিমুল বিয়েতে রাজি না থাকায় ববিতাকে হত্যার পরিকল্পনা করেন। সে অনুযায়ী শিমুল স্বামী স্ত্রীর পরিচয়ে আশুলিয়ার ইউনিক এলাকার দ্বীন মোহাম্মদের বাড়ির একটি কক্ষ ভাড়া নেয়। বাসা ভাড়া নেওয়ার দুইদিন পর ববিতাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে শিমুল। পরে কক্ষের বাইরে থেকে তালা দিয়ে পালিয়ে যায় শিমুল।

এঘটনায় নিহতের ভাই বাদশা মিয়া বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করলে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আসামিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা (এসআই) আবুল মালেক বলেন, হত্যাকারী খুব চালাক প্রকৃতির। তিনি হত্যাকাণ্ডের পরে নিহতের ভোটার আইডি কার্ডসহ সমস্ত কাগজপত্র লোপাট করে নিয়ে যায়।

পরবর্তীতে ববিতার পূর্বের স্বামীর সাথে যোগাযোগ করে তথ্য সংগ্রহ করে শিমুলকে গ্রেফতার করা হয়।প্রসঙ্গত, গত ২৮শে জানুয়ারি আশুলিয়ার ইউনিক এলাকার দ্বীন মোহাম্মদের বাড়ি থেকে নিহত ববিতার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে নিহতের ভাই বাদশা মিয়া বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন।

আরও খবর

Sponsered content