রাজশাহী

বড়াইগ্রামে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদন্ড

  প্রতিনিধি ২৬ এপ্রিল ২০২২ , ৭:০৭:০৭ প্রিন্ট সংস্করণ

বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি:

নাটোরের বড়াইগ্রামে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামী শাহীন মন্ডলকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক শরীফ উদ্দিন এই আদেশ দেন। দন্ডপ্রাপ্ত শাহীন মন্ডল উপজেলার চান্দাই ইউনিয়নের তেলো পশ্চিমপাড়া এলাকার রইচ উদ্দিন মন্ডলের ছেলে।

আদালতের ভারপ্রাপ্ত পিপি আরিফুর রহমান জানান, ২০১৫ সালের জুলাই মাসে নাটোরের বনপাড়া কালিকাপুর গ্রামের আফছার মিয়াজীর মেয়ে চম্পা খাতুনের সাথে একই উপজেলার চান্দাই তেলো পশ্চিমপাড়া মহল্লার রইচউদ্দিন মন্ডলের ছেলে শাহীন মন্ডলের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই চম্পা খাতুনকে এক লাখ টাকা যৌতুকের জন্য চাপ দিতে থাকে স্বামী শাহীন মন্ডল। চম্পা খাতুন তার বাবার কাছ থেকে যৌতুকের টাকা এনে দিতে অস্বীকার করায় প্রায়ই স্বামীর সাথে তার বিরোধ লেগে থাকতো। এরই একপর্যায়ে ২০১৬ সালের ২০ জানুয়ারি রাতে বিবাদের সময় চম্পা খাতুনকে ধারালো হাসুয়া দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায় তার স্বামী শাহীন মন্ডল। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

ভারপ্রাপ্ত পিপি আরও জানান, এ ঘটনার পরেরদিন নিহত চম্পা খাতুনের বাবা আফছার মিয়াজী বাদী হয়ে মেয়ের স্বামী শাহীন মন্ডল ও তার শ্বশুড় ,শ^াশুড়ীকে অভিযুক্ত করে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ শাহীন মন্ডলকে গ্রেফতার করে কারাগারে প্রেরণ করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা তদন্ত শেষে চম্পা খাতুনের শ্বশুড় ও শ্বাশুড়ীর নাম বাদ দিয়ে শুধুমাত্র স্বামী শাহীন মন্ডলের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন। মামলার স্বাক্ষ্য প্রমান গ্রহন শেষে আদালতের বিচারক শাহীন মন্ডলকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ দেন। এছাড়া ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৬ মাসের কারাদন্ড দেয়া হয়।

আরও খবর

Sponsered content

Powered by