রবিবার ৭ জুন ২০২০

২৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ই-পেপার

১৬ মে ২০২০ : ০১ : ৫৪

শনিবার থেকে ফুটবল ফিরছে ইউরোপে

চীন থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস বিশ্বজুড়ে দাপট দেখিয়েছে। মৃত্যুর মিছিল বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মার্চ থেকে স্থগিত করা হয়েছিল সব ধরনের খেলা। এবার করোনার ধাক্কা কাটিয়ে শনিবার থেকে মাঠে ফিরছে ফুটবল। 

 ইউরোপে সবার আগে শুরু হচ্ছে বুন্দেস লিগা। প্রথম ম্যাচে বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের মুখোমুখি হচ্ছে এফসি শালকে। 
ফাঁকা গ্যালারিতে চলবে খেলা। দর্শকহীন ম্যাচের কারণে জার্মান সংবাদমাধ্যম এই দ্বৈরথকে ‘ঘোস্ট ডার্বি’ বলে চিহ্নিত করছে। 
লিগ শুরুর জন্য ক্লাবগুলোকে ৫১ পাতার নিয়ম বেঁধে দিয়েছে লিগ কর্তৃপক্ষ। প্রতি ম্যাচের আগের দিন খেলোয়াড়, স্টাফ সবাইকে করতে হবে করোনা টেস্ট। 
রেফারি, ম্যাচ কর্মকর্তা, সাংবাদিক, ক্যামেরাম্যান, গ্রাউন্ডসম্যান সব মিলিয়ে মাঠে উপস্থিত থাকতে পারবেন ৩২২ জন। 
একদলের টিম বাস হবে কমপক্ষে ২টা। যেখানে ফুটবলারদের আসতে হবে কয়েক ধাপে। থাকবেনা কোনও ফটোশেসন। 
হাত মেলানো নিষেধ তাই গোল উদযাপনের সময় পায়ে পা অথবা কনুই মেলানো যেতে পারে। ১০ থেকে ১৫ মিনিট পরপর ফুটবলারদের স্যানিটাইজার দিয়ে হাত পরিষ্কার করা হবে বাধ্যতামূলক। 
মাঠের ফুটবলারদের মাস্ক পড়তে না হলেও যারা সাইডবেঞ্চে থাকবেন, সবার মাস্ক আবশ্যক। এমনকি একটা বলকে প্রতিটি আউট কিংবা থ্রোয়িংয়ে করা হবে জীবানুমুক্ত। 
ফুটবলাদের টিম হোটেল করা হবে সিলগালা। পরিচিত কেউ তো নয়-ই আসতে পারবেন না বান্ধবীরাও।
বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের ১১০ বছরের ইতিহাসে এই ঘটনা এই প্রথম হতে চলেছে। সম্পূর্ণ ফাঁকা গ্যালারিতে ম্যাচ। বুন্দেস লিগার ঐতিহ্যবাহী দলটির ঘরের মাঠ ইদুনা পার্কে খেলা হলে হলুদ-কালো জার্সি পরা ও স্কার্ফ গলায় জড়ানো সমর্থকদের দাপট থাকে। 
চেহারাই পাল্টে যায় গোটা শহরের। এদিনের চিত্রটা অবশ্য ভিন্নই থাকছে। ৮১ হাজারের বেশি দর্শকের স্টেডিয়াম আজ ফাঁকা থাকতে চলেছে।
বাংলাদেশ সময় ম্যাচটি শুরু হবে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায়। সরাসরি সম্প্রচার করবে স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট এইচডি ২।